গেটম্যানের ঘুমে প্রাণ গেল ১১ জনের!

প্রকাশিত: ২:৩৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৯, ২০২০ | আপডেট: ২:৩৭:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৯, ২০২০
গেটম্যানের ঘুমে প্রাণ গেল ১১ জনের!

রেলক্রসিংয়ের গেট খোলা রেখেই ঘুমিয়ে ছিলেন গেটম্যান। জীবন দিয়ে সেই ঘুমের মূল্য দিতে হয়েছে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ১১ বাস আরোহীকে।

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. সালাম কবির এমনটাই জানিয়েছেন।

শনিবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে জয়পুরহাট সদরের পুরানাপৈল রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় বাস আরোহী ১১ জন নিহত হন। আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন।

দুর্ঘটনার পর উত্তরবঙ্গের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বাঁধন পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি ক্রসিংয়ে উঠে গেলে পার্বতীপুর থেকে রাজশাহীগামী উত্তরা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ধাক্কা দেয়। এ সময় বাসটিকে কিছু দূর টেনে নিয়ে যায় ট্রেনটি।

নিহত ১১ জনই বাসের যাত্রী ছিলেন। আহত ছয়জনকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে গুরুতর আহত পাঁচজনকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. শরীফুল ইসলাম বলেন, এখন পর্যন্ত ১১টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পাঁচটি লাশ শনাক্ত করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। রেলওয়ের জিআরপি পুলিশকে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

স্থানীয় পুলিশ, প্রশাসন এবং ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে বলেও জানান তিনি।