মেঘনায় বরযাত্রীর ট্রলার ডুবে কনেসহ ৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৮:৪৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০২০ | আপডেট: ৮:৪৮:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০২০
মেঘনায় বরযাত্রীর ট্রলার ডুবে কনেসহ ৭ জনের মৃত্যু

নোয়াখালীর হাতিয়ায় মেঘনা নদীতে বরযাত্রীদের ট্রলার ডুবে কনেসহ কমপক্ষে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। প্রায় ৬০ যাত্রীর ওই ট্রলার দুর্ঘটনায় অজ্ঞাত সংখ্যক নিখোঁজ রয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে হাতিয়ার কেরিং চরের পাশের ভাঙ্গা স্লুইজের পাশের মেঘনায় ট্রলারটি ডুবে যায়।

জানা গেছে, হাতিয়ার দুই নম্বর চানন্দি ইউনিয়নের নলেরচর থেকে ভোলার মনপুরা উপজেলার চর কলাতলী যাচ্ছিল। ট্রলারটিতে ৬০ জন যাত্রী ছিল।

নলের চরের শাহাবুদ্দিন ও কলাতলীর কুদ্দুস মাঝিসহ বিভিন্ন সূত্র জানায়, বিকেল ৫টা পর্যন্ত কনেসহ সাতজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকিদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, সোমবার রাতে দুই নম্বর চানন্দি ইউনিয়নের নলেরচর থানার হাটের (মোরশেদ বাজার ) ইব্রাহিমের মেয়ের সঙ্গে ভোলার মনপুরা উপজেলার কলাতলীর বেলালের মেয়ের বিয়ে হয়।

হাতিয়ার নলচিরা ইউনিয়নের ফরায়েজী গ্রামের আশফাক জানান, ট্রলারটিতে তার দুই ভাগ্নি, দুই নাতিন ও এক ফুপাতো বোন ছিল। তাদের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

স্থানীয় মোরশেদ বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. হাসান জানান, উদ্ধার হওয়া সাতটি লাশ মোরশেদ বাজার তদন্ত কেন্দ্রে রয়েছে।

তিনি বলেন, ট্রলার দুর্ঘটনায় নিখোঁজ যাত্রীদের কতজন বিভিন্ন স্থানে উদ্ধার হয়েছে এ মুহূর্তে সঠিক বলা যাচ্ছে না। তবে আনুমানিক ৩০ জন উদ্ধার হয়েছে।