বিস্ফোরণে নিহত ২০ জনের মধ্যে ৬ জনের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন

প্রকাশিত: ১১:২৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০ | আপডেট: ১১:২৭:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০
বিস্ফোরণে নিহত ২০ জনের মধ্যে ৬ জনের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ২০ জনের মধ্যে ছয়জনের জানাজা সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার বিকেল ও সন্ধ্যায় বড় মসজিদ, তল্লা চেয়ারম্যান বাড়ি মসজিদ ও বাইতুস সালাত জামে মসজিদ সংলগ্ন বোমালা বাড়ির মাঠে নিহত ওই ছয়জনের জানাজা সম্পন্ন হয়।

ইতিমধ্যে জানাজা সম্পন্ন হয়েছে বিস্ফোরণে নিহত মসজিদের মুয়াজ্জিন দেলোয়ার হোসেন (৪৫) ও তার ছেলে জুনায়েদ (১৪), সাব্বির (২১), জুবায়ের (১৮), কুদ্দুস বেপারি (৭২), হুমায়ুন কবিরের (৬৫)।

নিহত মুয়াজ্জিন দেলোয়ার হোসেন ও তার ছেলে জুনায়েদের জানাজা তল্লা বড় মসজিদে বাদ মাগরিব অনুষ্ঠিত হয়। সাব্বির, জুবায়ের, কুদ্দুস বেপারীর জানাজা বোমালা বাড়ির মাঠে বাদ আছর অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে হুমায়ুন কবিরের জানাজা তল্লা চেয়ারম্যান বাড়ি মসজিদে সম্পন্ন হয়।

এদিকে নিহত মাইনুদ্দিনের (১২) লাশ তল্লা এলাকায় আনা হলেও পরিবারের সম্মতিতে গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হবে। নিহতদের আরো কয়েকজনকে তাদের গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক জানান, প্রত্যেকের দাফন সম্পন্ন করতে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ সময় মসজিদের ভেতরে থাকা ছয় এসি বিস্ফোরিত হয়। বিস্ফোরণে গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয় ৩৭ জনকে। তাদের মধ্যে ইতিমধ্যে ২০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। মসজিদের মেঝের নিচ দিয়ে তিতাস গ্যাসের লাইন গিয়েছে। ওই লাইনের লিকেজ থেকে জমা হওয়া গ্যাস বিস্ফোরণে এমন দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।