মনপুরার হাসপাতালে জন্ম নেওয়া সন্তানের নাম দিলো ‘আম্পান’

ছালাহউদ্দিন ছালাহউদ্দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২:৩৮ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০২০ | আপডেট: ২:৩৮:অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০২০
মনপুরার হাসপাতালে জন্ম নেওয়া সন্তানের নাম দিলো ‘আম্পান’

ভোলার মনপুরার ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তান্ডব চলাকালীন সময়ে রাতে প্রসব বেদনা নিয়ে আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয় এক প্রসূতি মা।

বৃস্পতিবার ভোর রাত ৪ টায় হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সদের প্রচেষ্ঠায় ওই প্রসূতি মায়ের সুস্থ্য অবস্থায় ছেলে সন্তান ডেলিভারি হয়। পরে ডাক্তার ও নার্সরা খুশিতে ওই জন্ম হওয়া ছেলে সন্তানের নাম দেয় আম্পান।

ওই প্রসূতি মা হলেন, উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়নের চরযতিন গ্রামের বাসিন্দা ছালাউদ্দিনের স্ত্রী সামিয়া (২৫)।

জানা যায়, ঘূর্ণিঝড়ের রাতে হাসপাতালে আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয় প্রসূতি মা সামিয়া। পরে ঘূর্ণিঝড়ের কারনে ভোলা নেওয়া হচ্ছিলনা। তারপরও রাতভর ডাক্তর ও নার্সদের চেষ্ঠায় সুস্থ্য অবস্থায় প্রথম ছেলে সন্তান আম্পান (ডাক্তাদের নাম দেওয়া) পৃথিবীতে আসে। সেই খুশিতে ডাক্তার-নার্সরা জন্ম নেওয়া ওই ছেলের নাম দেয় আম্পান। ওই মা ও সন্তান আম্পান সুস্থ্য রয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য প.প কর্মকর্তা ডাঃ মাহমুদুর রশীদ জানান, ওই প্রসূতি মা আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়। পরে ওই প্রসূতি মা ছেলে সন্তান দিলে আমরা নাম দেই আম্পান। মা ও আম্পান সুস্থ্য আছে, সকালে বাড়ি চলে গেছে।