লালমোহনের মেঘনা পাড়ের হাজারও মানুষ পানিবন্দি

হাসান পিন্টু হাসান পিন্টু

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২:৩৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ২:৪১:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০১৯
লালমোহনের মেঘনা পাড়ের হাজারও মানুষ পানিবন্দি

ভোলার লালমোহন উপজেলার ধলীগৌরনগর ইউনিয়নের কামারের খাল এলাকার স্লুইজ গেইটটি দীর্ঘ ২ বছর যাবত বন্ধ রয়েছে। যার ফলে গত এক সপ্তাহের মুষলধারে বৃষ্টি হওয়ার কারেণ ওই এলাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দেয়।

এতে এলাকার পথঘাট, বীজতলা, পুকুরসহ সব কিছু বর্তমানে পানির নীচে তলিয়ে রয়েছে। এছাড়াও মাছ চাষের পুকুরে পানি অধিক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় লক্ষ লক্ষ টাকার মাছ চলে যাচ্ছে অন্যত্র।

এলাকার ভূক্তভোগী সালাউদ্দিন, মোতালেব, আবু বকর ও আব্দুর রহমানসহ কয়েকজন জানান, প্রায় ২০ বছর আগে স্লুইজ গেইটটি স্থাপন করা হয় এ এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য। বিগত ১৮ বছর ধরে এই স্লুইজ গেইটটি দিয়ে নিয়মিত পানি নিষ্কাশন হতো। তবে দুই বছর ধরে স্লুইজটি অকেজাে অবস্থায় রয়েছে। যার ফলে এলাকার পানি নিষ্কাশন হতে না পাড়ায় সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতার। এতে করে পানিবন্দি রয়েছে এখানের হাজার হাজার মানুষ।

তারা আরও জানান, আমরা এখন বাড়ী-ঘরে যেতে পারছি না। রাস্তাঘাট সব ডুবে আছে পানির নিচে। তাই এ জলাবদ্ধতা দূরীকরণে শিগগিরই নতুন করে স্লুইজ গেইট নির্মাণের দাবী করছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, স্লুইজটি অকেজো হয়ে পড়ায় কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তা বন্ধ করে দেয়া হয়। এটির নতুন ডিজাইন ঢাকাতে পাঠানো হয়েছে। আশা করছি ডিজাইনটি পাশ হলেই দ্রুত নতুন একটি স্লুইজ নির্মাণ করা হবে। এরপর আর এ ধরনের জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে না।