জেলেদের লাইফ জ্যাকেট না থাকলে জেল-জরিমানা

এম আবু সিদ্দিক এম আবু সিদ্দিক

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ২:৩০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০১৯ | আপডেট: ৪:০৭:অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০১৯
জেলেদের লাইফ জ্যাকেট না থাকলে জেল-জরিমানা

ভোলার চরফ্যাসনে সাগরে মাছ শিকারে যাওয়া সকল জেলেদেরকে সতর্ক করেছেন উপজেলা প্রশাসন।

মৎস্য শিকারে প্রত্যেক ট্রলারে জেলেদের জন প্রতি লাইফ জ্যাকেট না থাকলে জেল-জরিমানা করা হবে। ট্রলার মালিকরা জেলেদের লাইফ জ্যাকেট নিশ্চিত করে জেলেদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করে নদীতে পাঠাবে। এ ব্যাপারে নদীতে নৌবাহিনী, কোস্টগার্ড ও পুলিশ চেকিং করে পর্যাপ্ত কিনা নিশ্চিত করবে জানালেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রম্যমান নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ রুহুল আমিন।

মঙ্গলবার বিকালে তার কার্যালয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন বলেন, ৩ দিন অতিবাহিত হলেও ২৮ জেলেকে এখনও জীবিত উদ্ধারের লক্ষ্যে প্রশাসনের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। হতভাগ্য জেলেরা বেঁচে আছে কিনা নিশ্চিত বলা যাচ্ছে না। ভবিষ্যতে এমন হৃদয় বিধারক ঘটনা যেন আর না ঘটে সেই লক্ষ্যে মাছ ধরা মৌসুমে প্রত্যেক জেলে লাইফ জ্যাকেট পড়া ব্যতিত নদী-সাগরে মাছ শিকার করতে দেওয়া হবে না। ট্রলারে লাইফ জ্যাকেট না থাকলে আটক করে মালিক ও জেলের শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। আর্থিক অসচ্ছলতার কারনে কোন জেলে লাইফ জ্যাকেট কিনতে না পারলে উপজেলা প্রশাসন লাইফ জ্যাকেটের ব্যবস্থা করবে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকের সাথে আলাপ করে কিছু সংখ্যক লাইফ জ্যাকেট আনার ব্যবস্থা করা হবে।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জানান, একটি লাইফ জ্যাকেটের মূল্য ৮শ টাকা থেকে ১৫শ টাকা। জেলেরা উত্তাল সাগরে মাছ শিকারে জীবনের ঝুঁকি থাকে। একটি লাইফ জ্যাকেটের চেয়ে একজন জেলের জীবন অনেক বেশি। একটু সচেতন হলে নদীতে দুর্ঘটনার কবল থেকে সহজে রক্ষা পাওয়া যায়। নদীতে ট্রলার দুর্ঘটনায় চরফ্যাসনে প্রায় ৪৫ জন জেলের সলিল সমাধি ঘটেছে। উপজেলা মৎস্য অফিস এ যাবৎ ৩৫ মৃত জেলে পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার বঙ্গোপসাগরের ৩ ট্রলার ডুবিতে ২৮ জেলে নিঁেখাজ থাকার ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে এবং জেলেদের নিরাপত্তার লক্ষ্যে ইলিশ ধরা মৌসুমে প্রশাসন কঠোর ভূমিকা নিতে বাধ্য হয়েছে। জীবন ও জীবিকার তাগিদে নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে আর কোন মায়ের কোল যেন খালি না হয়। ইলিশ মৌসুমে দূর্যোগের সময় প্রত্যেক জেলেকে ট্রলারে লাইফ জ্যাকেট পরে মাছ ধরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।