দৌলতখানে দুই দিনেও সন্ধান মেলেনি মেঘনায় ডুবে যাওয়া শিশুর

প্রকাশিত: ১০:০৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৯ | আপডেট: ১০:০৫:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
দৌলতখানে দুই দিনেও সন্ধান মেলেনি মেঘনায় ডুবে যাওয়া শিশুর

ভোলার দৌলতখান উপজেলার মেঘনা নদীতে ডুবে যাওয়া পাঁচ বছরের শিশু মো. জুনায়েদের দুই দিনেও সন্ধান মেলেনি। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল দুই দিন ধরে নদীতে অনেক খোঁজাখুজি করে না পেয়ে শুক্রবার বিকেলে তাদের উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত করেছে।

এর আগে বৃহষ্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার চরপাতা ইউনিয়নের রাধাবল্লভ এলাকার চৌকিঘাটে শিশু জুনায়েদ মেঘনা নদীতে ডুবে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ জুনায়েদ ওই ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের মো. আমজাদ হোসেনের ছেলে।

নিখোঁজ জুনায়েদের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহষ্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে উপজেলার রাধাবল্লভ এলাকার মেঘনার পাড়ে জুনায়েদ ও তার চাচাত ভাই মিলে খেলাধুলা করছিল। এ সময় জুনায়েদ তার হাতে থাকা একটি পাইপ পরিষ্কার করতে নদীর কিনারায় গেলে সে পানিতে পরে যায়। নদীর পানির স্রোত বেশী থাকায় মুহূর্তের মধ্যে সে হারিয়ে যায়।

পরে তার সাথে থাকা চাচাত ভাই এ ঘটনা দেখে কান্নাকাটি করলে স্থানীয়রা এসে ঘটনাস্থলে খুঁজাখোঁজি করে ব্যর্থ হয়ে দৌলতখান ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে উদ্ধার কাজ চালিয়ে যায়। পরে ভোলায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল না থাকায় বরিশাল থেকে ডুবুরীদল এনে অনেক চেষ্টা চালিয়েও শিশুটির খোজ না পেয়ে উদ্ধার কাজ সমাপ্ত করেন।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বজলার রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিখোঁজ শিশুটিকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল অনেক খোজাখুজি করে না পেয়ে শুক্রবার বিকেলে তাদের উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত করে। এবং এখনও তার কোনো সন্ধান মেলেনি।