মনপুরার মেঘনায় ভাসছে ৩ কনটেইনার

প্রকাশিত: ১:১০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০১৯ | আপডেট: ৮:১৮:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৪, ২০১৯
মনপুরার মেঘনায় ভাসছে ৩ কনটেইনার

ভোলার মনপুরার মেঘনায় তিন কনটেইনার ভাসতে দেখেছেন স্থানীয়রা। এর মধ্যে একটি কনটেইনার উপজেলার রামনেওয়াজ মৎস্য ঘাটের পশ্চিমপাশে মেঘনা পাড়ে রয়েছে। অপর ২টি কনটেইনার মনপুরার বিচ্ছিন্ন ডালচরের উত্তর পূর্ব কোনায় রয়েছে স্থানীয় ও প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।

তবে ডালচরের কনটেইনার ২টি রাতের জোয়ারে হাতিয়ার দিকে চলে গেছে বলে জানান মনপুরার থানার ওসি ফোরকান আলী। তিনি হাতিয়া থানাকে অবহিত করেছেন বলে জানান ওসি।

বুধবার সকালে স্থানীয়রা কনটেইনারটি শক্ত দড়ি দিয়ে মেঘনা পাড়ে বেঁধে রাখে। এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে রামনেওয়াজ মৎস্য ঘাটের পশ্চিম পাশে মেঘনা পাড়ে ব্লক বাঁধের উপর একটি কনটেইনার মেঘনায় ভাসতে ভাসতে আটকে পড়ে।

জানা যায়, গত রোববার করিম শিপিং লাইনস্ কনটেইনারবাহী জাহাজ ‘কেএসএল গ্রেডিয়েটর’ পণ্যভর্তি ৮৩ কনটেইনার নিয়ে চট্রগ্রাম বন্দর থেকে ঢাকার কেরানীগঞ্জের পানগাঁও কনটেইনার টার্মিনালের উদ্দেশে রওনা দেয়। প্রতিমধ্যে হাতিয়া চ্যানেলে লাল বয়ার কাছে পৌছালে প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যে পড়ে ৪৩ কনটেইনার ছিটকে সাগরে পড়ে যায়।

স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয়দের ধারনা হাতিয়া চ্যানেলে জাহাজ থেকে ছিটকে পড়া ৪৩ কনটেইনারগুলোর মধ্যে এই কনটেইনারটি হতে পারে।

সরেজমিনে বুধবার রামনেওয়াজ ঘাটে গিয়ে দেখা যায়, একটি কনটেইনার উপজেলার রামনেওয়াজ মৎস্য ঘাটের পূর্বপাশে মেঘনা পাড়ে বøকের উপর পড়ে রয়েছে। কনটেইনারটি সম্মুখে ‘ট্রিশন ইন্টারন্যাশনাল’ এর সীল মারা রয়েছে। এছাড়াও কাস্টম্স এর অনুমোদনের সীল রয়েছে। এদিকে কনটেইনারটি নিচে ও উপরের কিছু অংশ ভেঙ্গে গেছে। এতে কনটেইনারটি ভেতরে বস্তাভর্তি তুলা দেখা যায়।

মনপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফোরকান আলী জানান, খবর পেয়ে একজন এস.আই ঘটনাস্থলে পাঠাই। এছাড়া চট্রগ্রামের বন্দর থানাকে মুঠোফোনে অবহিত করা হয়েছে।