সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন বড়মানিকা ইউনিয়ন পরিষদ

প্রকাশিত: ৮:৩১ অপরাহ্ণ, জুন ২, ২০২২ | আপডেট: ৮:৩১:অপরাহ্ণ, জুন ২, ২০২২
সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন বড়মানিকা ইউনিয়ন পরিষদ

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় ৯নং বড়মানিকা ইউনিয়নে জেলেদের চাল বিতরণে অনিয়ম ও কার্ড থাকাসত্বে জেলে চাল না পাওয়ার অভিযোগ এনে টাইমস ২৪ অনলাইন নিউজ পোর্টালে ও ব্যক্তিগত ফেইসবুকে তথাকথিত সাংবাদিক যে সংবাদ প্রকাশ করেছেন তার প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বড়মানিকা ইউনিয়ন পরিষদ।

বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটায় ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে লিখিত বক্তব্য বড়মানিকা ইউপি চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন হায়দার জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জেলেদের জন্য যে চাল বরাদ্ধ দিয়ে আসছে তা সঠিক নিয়মে বিতরণ করা হয়।

তথাকথিত সাংবাদিক জেলেদের চাল বিতরণে অনিয়ম ও কার্ড থাকাসত্বে জেলে চাল না পাওয়ার অভিযোগ এনে টাইমস ২৪ অনলাইন ও ফেইসবুকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে মানুষ কে বিভ্রান্তি করছে। তা মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। আমরা ওই সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি। প্রকৃত সত্ব্য ঘটনা হচ্ছে বড়মানিকা ইউনিয়ন পরিষদে জেলে কার্ডধারী ২৯শত ২৮ জন এপ্রিল ও মে ২ মাসে সরকারি চাল বরাদ্ধ পেয়েছি ১৭শত ২ জনের। প্রতি জেলে কে ৮০ কেজি করে চাল ট্যাগ অফিসার মো. মিজানুর রহমান ও মৎস্য কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে বিতরণ করা হয়। চাল বিতরণে কোন অনিয়ম হয়নি। তবে ১০১১ জনের জেলে কার্ড থাকাসত্বেও বরাদ্ধ না পাওয়ায় চাল দিতে পারিনি সত্য। আগামী সপ্তাহে এদেরকে চাল দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। তাদের আর অভিযোগ থাকবে না। যারা চাল পায়নি তারা অভিযোগ দিতেই পারে। তাই সাংবাদিক ভাইদের কাছে অনুরোধ প্রকৃত সত্য ঘটনাটি তুলে ধরুন। তিনি আরোও বলেন, আমরা যেহেতু রাজনীতি করি আমাদের কিছু প্রতিপক্ষ গ্রুপ আছে। তারা আপনাদেরকে মিথ্যা তথ্য দিতে পারে। আপনারা প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন না করে মিথ্যা তথ্য প্রচার করলে আমাদের সুনাম নষ্ট হয়।

ওই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বড়মানিকা ১নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. বাবুল বয়াতী, ২নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. রাব্বি, ৩নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য আমিন হাওলাদার, ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম, ৫নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. জাকির হোসেন, ৬নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য দীন ইসলাম, ৭নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. ছালেম পাটোয়ারী, ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. রবিউল আলম, ৯নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মো. সালামত উল্লা প্রমূখ।