ডেঙ্গু রোধে বাসা-বাড়ির আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

প্রকাশিত: ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৩৭:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৯
ডেঙ্গু রোধে বাসা-বাড়ির আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

ডেঙ্গু প্রতিরোধে বাসা-বাড়ির আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখতে এবং কোরবানির পশুর বর্জ্য যথাযথ স্থানে ফেলার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সোমবার বঙ্গভবনে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের তিনি এ আহ্বান জানান।

বাসস জানায়, মুসলিমদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

তিনি বলেন, “যদি আপনি নির্ধারিত স্থান ব্যতীত কোরবানির পশুর বর্জ্য যত্রতত্র রাখেন, তবে এতে এডিস মশার প্রজনন বৃদ্ধি পাবে। সুতরাং আপনি নিজ দায়িত্বে বাসা-বাড়ি ও এর আশপাশ পরিষ্কার রাখুন।”

রাষ্ট্রপতি বলেন, “আপনার খেয়াল রাখতে হবে, আপনার ঈদের আনন্দ যেন অন্যের জন্য বিষাদের কারণ না হয়ে ওঠে।”

তিনি বলেন, এবার ঈদুল আজহা এমন এক সময় উদযাপিত হচ্ছে, যখন দেশব্যাপী ডেঙ্গুর প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে দেশের অনেক জায়গায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের দুর্ভোগের কথা উল্লেখ করে ধনী ব্যক্তিদের বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান রাষ্ট্রপতি, যাতে ক্ষতিগ্রস্তরা ঈদ উৎসব থেকে বঞ্চিত না হন।

এসময় আবদুল হামিদ বলেন, হযরত ইব্রাহিম (আ.) আল্লাহর নির্দেশ অনুযায়ী তার প্রিয়পুত্র হযরত ইসমাইল (আ.) কে কোরবানি করার পদক্ষেপ নিয়ে আল্লাহর প্রতি ভালোবাসা, আনুগত্য ও ত্যাগের এক অতুলনীয় উদাহরণ স্থাপন করেছেন।

তিনি বলেন, “কোরবানি (ত্যাগ) মানুষকে ধৈর্য ধারণের পাশাপাশি ত্যাগ স্বীকার করতে শেখায়। ধৈর্য ও ত্যাগের মানসিকতার প্রতি আকৃষ্ট হয়ে আমাদের ঈদুল আজহা থেকে সমাজে শান্তি ও সাম্য প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে শিক্ষাগ্রহণ করতে হবে।”

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি, মন্ত্রীবর্গ, উপদেষ্টাবৃন্দ, সেনাবাহিনী ও নৌবাহিনী প্রধান, কূটনীতিকবৃন্দ, পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি), বিশিষ্ট নাগরিকরা এবং উচ্চ পর্যায়ের বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা যোগ দেন।