পশুর নদীতে সার বোঝাই কার্গো জাহাজ ডুবি

প্রকাশিত: ৬:৪৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০২১ | আপডেট: ৬:৪৯:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০২১
পশুর নদীতে সার বোঝাই কার্গো জাহাজ ডুবি

মোংলা বন্দরের পশুর নদীতে সার বোঝাই একটি কার্গো জাহাজ ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কার্গো জাহাজের ১০ নাবিক সাঁতরে কূলে উঠতে সক্ষম হন।

দুর্ঘটনাকবলিত কার্গো জাহাজের মাস্টার রিয়াদ আলী মোল্লা ও বাংলাদেশ লঞ্চ লেবার অ্যাসোসিয়েশনের মোংলা শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান বাবুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তারা জানান, মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলের হাড়বাড়িয়ার-১৪ নম্বরে থাকা বিদেশি জাহাজ থেকে ৮৫০ মেট্রিক টন সার (ড্যাপ সার) বোঝাই করে কার্গো জাহাজ এমভি দেশবন্ধু। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে সার বোঝাইয়ের পর কার্গোটি যশোরের নওয়াপাড়ার উদ্দেশে রওনা হয়।

পথিমধ্যে শুক্রবার দুপুরে পশুর নদীর চিলা ও কাইনমারী এলাকার মাঝামাঝি এলাকার ডুবো চরে আটকে যায়। এরপর সেখানে জাহাজটি তলা ফেটে ডুবে যায়। জাহাজটির ব্রিজের কিছু অংশ দেখা গেলেও বাকি পুরো অংশই নদীতে নিমজ্জিত রয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন কার্গো জাহাজের মাস্টার রিয়াদ আলী মোল্লা।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার ও সচিব (ভারপ্রাপ্ত) কমান্ডার শেখ ফখরউদ্দীন বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত স্থানে হারবার বিভাগের লোকজন পাঠানো হচ্ছে। তারা পরিদর্শন করে আসার সঙ্গে সঙ্গে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, কার্গোটি মূল চ্যানেলের বাইরে ডুবেছে। এতে এই চ্যানেল দিয়ে নৌ চলাচলে কোনো সমস্যা ও ঝুঁকি নেই। তারপরও দুর্ঘটনাকবলিত স্থানে মার্কিংয়ের ব্যবস্থা করে দেওয়া হচ্ছে, যাতে পুনরায় কোনো দুর্ঘটনার শিকার না হয় অন্যান্য নৌযান।

এই কর্মকর্তা আরও বলেন, কার্গোটি পশুর নদীর চরের ওপরে রয়েছে, এতে মূল চ্যানেল সম্পূর্ণই ঝুঁকিমুক্ত ও নিরাপদ রয়েছে।