শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বাংলাদেশের শুভ সূচনা

প্রকাশিত: ৮:১২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০২১ | আপডেট: ৮:১২:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০২১
শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বাংলাদেশের শুভ সূচনা

দারুণ জয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে শুভ সূচনা হলো বাংলাদেশের। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১-০ গোলে হারিয়েছে অস্কার ব্রুজোনের দল। বাংলাদেশের হয়ে পেনাল্টি থেকে জয়সূচক গোলটি করেন ডিফেন্ডার তপু বর্মণ।

শনিবার মালদ্বীপের মালের জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকে বলের নিয়ন্ত্রণ নেয় লাল-সবুজরা। কিন্তু কোনোভাবেই লঙ্কানদের রক্ষণদেয়ালে ফাটল ধরাতে পারছিল না জামাল ভূঁইয়ারা। বাংলাদেশের ব্যর্থতায় প্রতিপক্ষও চাপ তৈরি করে।

অষ্টম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ব্রুজোনের দল। বাঁ-দিক থেকে ডিফেন্ডার ইয়াসিন আরাফাতের থ্রো-ইনে বক্সের থেকে জোরালো শট নেন তপু। কিন্তু বল লাগে এক লঙ্কান ডিফেন্ডারের গায়ে। এরপর বল ডি-বক্সের ভেতর এক লঙ্কান খেলোয়াড়ের হাতে লাগলে পেনাল্টির আবেদন করে বাংলাদেশ। কিন্তু সাড়া দেননি রেফারি।

২০তম মিনিটে সুযোগ পায় শ্রীলঙ্কাও। কিন্তু হার্শা ফের্নান্দোর শট চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে। এর দুই মিনিট পরে জামাল ভূঁইয়ারও এক শট প্রতিপক্ষের গোলপোস্টের ওপর দিয়ে চলে যায়।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে আরাফাতের লম্বা ক্রসে হেড নেন তপু। তবে বল লাইন থেকে ফেরান শ্রীলঙ্কার গোলরক্ষক সুজন পেরেরা।

দ্বিতীয়ার্ধে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় বাংলাদেশ। ডি-বক্সের ভেতর ক্লিয়ার করতে গিয়ে বল হাতে লাগে শ্রীলঙ্কার ডিফেন্ডার ডাকসন পুসলাসের হাতে। পেনাল্টি পায় ব্রুজোনের দল। ৫৬তম মিনিটে বুদ্ধিদীপ্ত স্পট-কিকে জাল খুঁজে নেন তপু।

তার আগেই দশ জনের দল হয়ে পড়ে শ্রীলঙ্কা। বল হাতে লাগায় ৫৫তম মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন পুসলাস। বিপলুর ভাসিয়ে দেওয়া বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন ইব্রাহিম। তাকে বাধা গিয়ে বল হাতে লাগিয়ে বসেন পুসলাস।

দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপ খ্যাত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশের সর্বশেষ দেখা হয়েছিল ২০০৯ সালে। সেবার ২-১ গোলে জিতেছিল লাল-সবুজরা। এবার ১১ বছর পর ফিরতি সাক্ষাতেও হাসল বাংলাদেশ।

এই ম্যাচ দিয়ে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের ডাগআউটে দাঁড়ালেন স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজোন। ইংলিশ কোচ জেমি ডে’র পরিবর্তে অস্থায়ী হিসেবে লাল-সবুজদের দায়িত্ব নিলেন বসুন্ধরা কিংসের এই কোচ।