লিবিয়ায় নতুন অন্তর্বর্তী সরকার, স্বাগত জানাল জাতিসংঘ

প্রকাশিত: ২:১৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২১ | আপডেট: ২:১৫:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২১
লিবিয়ায় নতুন অন্তর্বর্তী সরকার, স্বাগত জানাল জাতিসংঘ

জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় গঠিত লিবিয়ান পলিটিক্যাল ডায়ালগ ফোরাম (এলপিডিএফ) দেশটির অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করেছে।

এই সরকারের প্রেসিডেন্সি কাউন্সিলের প্রধান হয়েছেন মোহাম্মদ আল মেনফি আর প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন আবদুল হামিদ দবিবেহ। খবর: আলজাজিরা।

জাতিসংঘ মহাসচিব এন্তোনিও গুতেরেস লিবিয়ায় নতুন অন্তর্বর্তী সরকারের বিষয়ে সমঝোতা হওয়ায় একে স্বাগত জানিয়েছেন।

শুক্রবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, শান্তি খোঁজার পথে আজ আমরা খুব ভালো খবর পেয়েছি। এলপিডিএফ সদস্যদের দ্বারা নির্বাচিত অন্তর্বর্তী নির্বাহী কর্তৃপক্ষকে আমি স্বাগত জানাচ্ছি।

তিনি শুক্রবারের এ ভোটাভুটির ফলাফল মেনে নিতে ডায়ালগ ফোরাম, আন্তর্জাতিক অংশীদারসহ সকল পক্ষকে আহ্বান জানিয়েছেন।

গুতেরেস বলেন, কারও জন্যই এই সমঝোতার বিষয়টি মেনে না নেওয়ার কোনো কারণ নেই। কারণ এটি লিবিয়াসহ দেশটির সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত অন্য সকল দেশের সমন্বয়ে করা হয়েছে। এটি একটি স্বচ্ছ প্রক্রিয়া। এতে সবাইকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

জাতিসংঘ মহাসচিব আরও বলেন, লিবিয়াকে ঐক্যবদ্ধ করতে এবং চলতি বছরের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠেয় নির্বাচন প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিতে এই সমঝোতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সকলের সম্মতিতে করা এই প্রক্রিয়া নিয়ে কারও কোনো প্রশ্ন থাকতে পারে না বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

লিবিয়ায় দেশব্যাপী অস্ত্রবিরতি চুক্তির পরই অন্তর্বর্তী সরকারের বিষয়ে সমঝোতা হয়।

এ প্রসঙ্গে গুতেরেস বলেন, ‘এখন আমরা অস্ত্রবিরতি চুক্তি পেয়েছি। নির্বাচনের ব্যাপারে হয়েছে রাজনৈতিক সমঝোতাও। আমরা নতুন ও অস্থায়ী নির্বাহী কর্তৃপক্ষও পেয়েছি।’

ডিসেম্বরে নির্বাচনের আগ পর্যন্ত দায়িত্ব পালনের সুযোগ পাওয়া এই অন্তর্বর্তী নির্বাহী কর্তৃপক্ষের সকল সদস্যকে তিনি স্বাগত জানিয়ে তাদের সার্বিক সফলতা কামনা করেছেন।

জেনেভায় জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় এলপিডিএফের সদস্যরা শুক্রবার ভোটের মাধ্যমে নতুন একজন প্রধানমন্ত্রী ও নতুন প্রেসিডেন্সি কাউন্সিলের তিন সদস্যকে নির্বাচিত করে। আগামী ২১ দিনের মধ্যে এই নতুন কর্তৃপক্ষ নতুন সরকার প্রতিনিধি পরিষদে উপস্থাপন করবে।