ভোলায় পাচারকালে বিপন্ন তিন তক্ষক উদ্ধার

প্রকাশিত: ৪:২২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৪, ২০২১ | আপডেট: ৪:৩৬:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৪, ২০২১
ভোলায় পাচারকালে বিপন্ন তিন তক্ষক উদ্ধার

ভোলা সদর উপজেলার খেয়াঘাট ব্রিজ সংলগ্ন এলাকা থেকে পাচারকালে অভিযান চালিয়ে তিনটি তক্ষক উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোন। তবে এর সাথে জড়িত পাচারকারীদের কাউকে আটক করতে পারেনি তারা।

সোমবার দুপুরে ভোলার বন বিভাগের কাছে তক্ষক তিনটি হস্তান্তর করা হয়।

কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে উদ্ধার হওয়া তক্ষক তিনটির আনুমানিক মূল্য তিন কোটি ৩০ লাখ টাকা ধরা হলেও বনবিভাগ বলছে এটা ভিত্তিহীন। হুজুগের বশে বিপন্ন এই প্রাণীটি ধরে পাচার করা হয়।

কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোনের মিডিয়া অফিসার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম মেহেদী হাসান জানায়, রোববার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোস্টগার্ডের একটি দল খেয়াঘাট ব্রিজ এলাকা অভিযান চালায়। সেখানে মোটরসাইকেলে দুই যুবক তক্ষক তিনটি নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় তাদেরকে ধাওয়া করলে ব্যাগভর্তি তিনটি তক্ষক ফেলে দিয়ে তারা পালিয়ে যায়। কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে উদ্ধারকৃত তক্ষক তিনটির আনুমানিক মূল্য তিন কোটি ত্রিশ লাখ টাকা ধরা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

তবে উপকূলীয় বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. তৌফিকুল ইসলাম বলছে, মিথ্যা বিশ্বাসের উপর ভিত্তি করে তক্ষক বেচা-কেনা হয়। এর কোনো বাজার মূল্য নেই। বিপন্ন এই প্রাণীটি ধরে হুজুগের বশে পাচার করা হয়। উদ্ধার হওয়া তক্ষক তিনটিকে বন বিভাগের সংরক্ষিত বনে অবমুক্ত করা হবে বলেও জানান তিনি। বিডি-জার্নাল